লাল শাক সবচেয়ে জনপ্রিয় ও অন্যতম। আমরা প্রায় সবাই লাল শাক খেতে পছন্দ করি। কেনই বা খাবেন না, এতে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ, যা শরীর স্বাস্থ্য ভালো ও সতেজ রাখতে বিরাট ভূমিকা পালন করে। লাল শাক অনেক ভাবে রান্না করে খাওয়া যায়। যেমন লাল শাক শুধু ভাজা করে খাওয়া যায়, এবং মাছ দিয়েও রান্না করে খাওয়া যায়। যেভাবেই খান না কেন এর রয়েছে অনেক উপকারীতা! সুতরাং এটা নিয়মিত খাওয়ার চেষ্টা করুন। যারা নিয়মিত লাল শাক খান না, তাদের উচিত খাওয়া শুরু করে দেওয়া বিশেষত শীতকালের জন্য।

প্রতি ১০০ গ্রাম লাল শাকে আছে ক্যালশিয়াম -৩৭৪ মিলিগ্রাম, প্রোটিন -৫.৩৪ মিলিগ্রাম, স্নেহ- ০.১৪ মিলিগ্রাম, শর্করা -৪.৯৬ এছাড়াও রয়েছে ভিটামিন বি ২, ভিটামিন সি, ক্যারোটিন ও অন্যান্য খনিজ পদার্থ।

দেহের সুস্থতা বজায় রাখতে লাল শাকের গুরুত্ব অপরিসীম। তাহলে জেনে নিন লাল শাকের বিস্ময়কর উপকারীতা।

১. লাল শাকে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন এ রয়েছে। ভিটামিন এ চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে এবং রাতকানা রোগ ভালো করতে বিশেষ ভূমিকা রাখে। যাদের ভিটামিন এ অভাব আছে তাদের নিয়মিত লাল শাক খাওয়া উচিত।

আরও পড়ুন-|| কুমড়োর গুণাগুন ||

২. কোলেস্টেরল স্বাভাবিক রাখতে লাল শাকের ভুমিকা অনন্য। লাল শাক রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। ফলে হৃদ রোগের ঝুঁকি কমে। তাই ছোট বড়ো সবার লাল শাক খাওয়া উচিত।

৩. রক্তশূন্যতা রোধে লাল শাকের ভুমিকা অতুলনীয়। বলা যায় লাল শাকের প্রধান কাজই হচ্ছে রক্তশূন্যতা রোধ করা। এই শাকের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে, যা যেকোনো মানুষের রক্তশূন্যতা রোধ করতে অনেক কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

৪. শরীরের শক্তি বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে। যেহেতু এই শাকে রয়েছে ক্যালশিয়াম, প্রোটিন, শর্করা, স্নেহ, ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ২, ভিটামিন সি, ক্যারোটিন ও অন্যান্য খনিজ পদার্থ, সেহেতু দেহের শক্তি বাড়াতে যথেষ্ট অবদান রাখে।

৫. নিয়মিত হজম শক্তি বাড়ানোর জন্য লাল শাক খেতে পারেন। এই শাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার বা আঁশ থাকে যা হজম করতে সাহায্য করে, ফলে স্বাভাবিকভাবেই বদহজমের আশঙ্কা থাকেনা।

৬. ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে ও লাল শাক সহায়তা করে। এই শাক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। তাছাড়া এই শাকে উপস্থিত অ্যামাইনো অ্যাসিড, আয়রন, পটাসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই শরীরে উপস্থিত একাধিক টক্সিক উপাদান দূর করে। সেই সঙ্গে ক্যান্সার কোষ যাতে জন্ম নিতে না পারে সেদিকেও খেয়াল রাখে।

৭. বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। উপরোক্ত উপকার গুলো ছাড়াও লাল শাক দেহের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। তাই চেষ্টা করুন প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় লাল শাক রাখতে। এটি আপনার শরীর কে আরও সুস্বাস্থবান রাখবে।